২১শে আগস্ট, ২০১৯ ইং ।। বুধবার ।। ৬ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ ।। নিবন্ধনের জন্য তথ্য মন্ত্রণালয় আবেদনকৃত অনলাইন পত্রিকা www.jhalokathisomoy.com

সাম্প্রদায়িক, মৌলবাদী ও মুক্তিযুদ্ধবিরোধী ছাড়া যে কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান এ সাইটের তথ্য, ছবি বা ভিডিও প্রয়োজনে ব্যবহার করতে পারবেন-সম্পাদক

ভাগ্য দেবী প্রসন্ন, নাটকীয়তা শেষে চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড

বিশেষ প্রতিনিধি

এ যেন নাটকের চেয়েও নাটকীয়তা।শেষে বলে বলে নতুন মোড়।অবশেষে চার বারের চেষ্টায়  ভাগ্যের দেবী প্রসন্ন হলেন। ইংল্যান্ডের জয় হল প্রথম বিশ্বকাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট।ক্রিকেট বিশ্বের নতুন রাজা এখন ইংল্যান্ড।বিশ্বসেরার মুকুট মাথায় তুলল বৃটিশরা।

সুপার ওভারে ড্র করেও চ্যাম্পিয়ন হলো ইংল্যান্ড। সুপার ওভারে ট্রেন্ট বোল্টের বলে জস বাটলার এবং বেন স্টোকস মিলে করেন ১৫ রান। বিশ্বকাপ জিততে জোফরে আর্চারের এক ওভারে ১৬ রান নিতে হবে নিউজিল্যান্ডকে।

শুধু ফাইনালেই নয়, পুরো টুর্নামেন্টজুড়ে বাজে ব্যাটিং করার মার্টিন গাপটিলের ওপরই ভারসা করে নিউজিল্যান্ড। তার সঙ্গে নামেন জিমি নিশাম। প্রথম বলই করেন ওয়াইড। পরের ডেলিভারিতে ২ রান নেন জেমি নিশাম। পরের বলেই ফুললেন্থ ডেলিভারি আছড়ে ফেলেন গ্যালারিতে। বলের সঙ্গে মাঠরে বাইরে চলে যায় ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপ স্বপ্নও। পরের ২ বলে নেন ২ রান করে। শেষ ২ বলে জয়ের জন্য দরকার ছিল ৩ রান। পঞ্চম বলে আসে ১ রান। প্রথমবারের মতো স্ট্রাইক পান গাপটিল। শেষ বলে দরকার ২ রান। আস্থার প্রতিদান দিনে পারলেন না গাপটিল। দুই রান নিতে গিয়ে রান আউট হয়ে গেলেন। ম্যাচ টাই হলেও শিরোপা ঘরে উঠলো ইংল্যান্ডের।

এর আগে মূল ম্যাচের শেষ ওভারে ইংল্যান্ডের জয়ের জন্য দরকার ছিল ১৫ রান। প্রথম দুই বলে স্টোকসকে পরাস্ত করেন ট্রেন্ট বোল্ট। তৃতীয় বলে ছক্কা হাঁকিয়ে আশা জাগান স্টোকস। পরের বলেই হল সবচেয়ে বড় নাটকীয়তা। ফুলটস থেকে দৌড়ে দুই রান নেয়ার পথে সীমানা থেকে ছোড়া বল স্টোকসের গায়ে লেগে চলে হয়ে গেল ৪। ছয় রান যোগ হয়ে গেলো ইংল্যান্ডের স্কোরে। পরের বলে রান আউট হওয়ার আগে ১টি রান নিয়ে গেলেন আদিল রশিদ। শেষ বলে জয়ের জন্য দরকার ছিল ২ রান। এক রান হওয়ার পর দ্বিতীয় রান নিতে গিয়ে আউট হয়ে গেলেন মার্ক উড। খেলা গড়ালো সুপার ওভারে।

লর্ডসে রোববার টস জিতে শুরুতে ব্যাট করে নিউজিল্যান্ড নির্ধারিত ওভারে ৮ উইকেটে ২৪১ রান করে। জবাবে ৫০ ওভারে সবক’টি উইকেট হারিয়ে ইংল্যান্ডও করে সমান রান।

তাই নিয়ম অনুযায়ী ম্যাচটি করে গড়ায় সুপার ওভারে। সুপার ওভারেও দুই দল সমান ১৫ রান করে সংগ্রহ করে। তাই সুপার ওভারের খেলাও টাই হয়। তবে বাউন্ডারি বেশি থাকায় ইংল্যান্ড জিতে নেয় শিরোপা।

(সম্পাদক/বাস/ঝাস)

 


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2019
Developed BY Icone