২৪শে অক্টোবর, ২০২০ ইং ।। রবিবার ।। ৯ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ ।। নিবন্ধনের জন্য তথ্য মন্ত্রণালয় আবেদনকৃত অনলাইন পত্রিকা www.jhalokathisomoy.com

সাম্প্রদায়িক, মৌলবাদী ও মুক্তিযুদ্ধবিরোধী ছাড়া যে কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান এ সাইটের তথ্য, ছবি বা ভিডিও প্রয়োজনে ব্যবহার করতে পারবেন-সম্পাদক

ঝালকাঠিতে নারীর চুল কেটে দেয়ার অভিযোগে আ.লী-বিএনপির দুই নেতাসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা

খবরের ভিডিও: নারীর চুল কেটে দেয়ার অভিযোগে কেকা ও তাপুর নেতার বিরুদ্ধে মামলা

খবরের ভিডিও: নারীর চুল কেটে দেয়া ও দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ আদায়ের অভিযোগে ঝালকাঠিতে আ.লীগ নেত্রী শারমীন মৌসুমী কেকা ও বিএনপি নেতা আনিসুর রহমান তাপুসহ ৬জনের বিরুদ্ধে মামলা #################################ঝালকাঠিতে এক নারীকে অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায় ও মধ্যযোগীয় কায়দায় নির্যাতনের পর ওই নারীর চুল কেটে দেওয়ার অভিযোগে জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শারমিন মৌসুমী কেকা ও শহর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান তাপুসহ ৬ জনের নামে আদালতে মামলা দায়ের হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে ঝালকাঠির নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এ আদালতে নির্যাতিত নারী পারভিন আক্তার বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন। আদালতের বিচারক জেলা ও দায়রা জজ মো. শহিদুল্লাহ সদর থানার ভারপ্রাপ্তকর্মকর্তাকে এজাহার গ্রহণের নির্দেশ দেন। পাশাপশি বাদীর সম্পূর্ণ নিরাপত্তা প্রদানের আদেশ দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন বাদীর আইনজীবি।মামলার উধৃতি দিয়ে বাদীর আইনজীবি মোজাম্মেল হোসেন ভিকটিমের স্বামী বোরহান উদ্দিনের তালাকপ্রাপ্ত প্রথম স্ত্রীর ভাই ঝালকাঠি শহর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান তাপু ও তার সহযোগী জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শারমিন মৌসুমী কেকা সহ ৮-১০ জন গত ৩০ আাগস্ট সন্ধায় ঝালকাঠি জেলা পরিষদের সামনের বাসায় যায়। এসময় তারা ঘরের ভেতরে ঢুকে ওই নারীকে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন করেন। পরে ওই নারীকে অপহরণ করে শহরের বিআইপি সড়কের একটি হোটেলে নিয়ে আটকে রেখে রাতভর নির্যাতন শেষে চুল কেটে দেয়। এসময় ওই নারীর কাছ থেকে কয়েকটি সাদা কাগজেও সই নেওয়া হয়। পরে ওই নারীর ভাইকে ফোন করে দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ চায় আসামিরা। পরের দিন সকালে মুক্তিপণের ২লাখ টাকা দিলে নির্যাতিত নারীকে ছেড়ে দেয় দেয়া হয়। ঝালকাঠির নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ আদালতের বিচারক জেলা ও দায়রা জজ মো. শহিদুল্লাহ মামলাটি ঝালকাঠি সদর থানায় সরসরি এজাহার হিসেবে নথিভূক্ত করে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে বাদীর সম্পূর্ণ নিরাপত্তা প্রদানের আদেশ দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন বাদীর আইনজীবি।তবে এ ঘটনা সাজানো দাবি করে এটি রাজনৈতিক হয়রানীমূল মামলা বলে দাবী করেছেন জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শারমীন মৌসুমী কেকা ও ঝালকাঠি শহর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান তাপু।

Posted by Jhalokathi Somoy on Thursday, September 17, 2020


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Logo
সম্পাদক ও প্রকাশক : পলাশ রায়
১৪, রীডরোড, শহীদ স্মরণি, ঝালকাঠি ৮৪০০
ইমেইল : [email protected]
মুঠোফোন : ০১৭১২ ৫১ ৭৫ ৪৬
© All rights reserved © 2019